আন্দোলন সংগ্রামে নারী

বিলিয়নিয়ার তালিকা থেকে বাদ পড়লেন কাইলি জেনার

ওমেনআই ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের রিয়েলিটি টিভি তারকা কাইলি জেনারকে সর্বকনিষ্ঠ বিলিয়নিয়ার হিসেবে গত বছর ঘোষণা দিয়েছিল প্রভাবশালী ম্যাগাজিন ফোর্বস। এবার তারাই আবার ঘোষণা দিলেন, কাইলির দাবি ‘ডাহা মিথ্যা, মনগড়া’। তিনি নাকি সত্যি সত্যি বিলিয়নিয়ার নন। তবে এসবের তোয়াক্কা করছেন না কাইলি জেনার।

২০১৯ সালের মার্চে বিখ্যাত ফোর্বস ম্যাগাজিনে বিলিয়নিয়ারদের তালিকায় উঠে আসে কাইলি জেনারের নাম। মাত্র ২১ বছর বয়সেই আত্মনির্ভরশীল নারী হিসেবে তিনি এই তালিকায় স্থান পান। কিন্তু বছর ঘুরতেই ফোর্বস বলছে, কাইলি প্রকৃতপক্ষে বিলিয়নিয়ার নয়।

কিম ও কুর্টনি কারদাশিয়ানের বোন কাইলি জেনার। তিনি ২০১৬ সালে ২৯ ডলার মূল্যের লিপ কিটস বাজারে আনেন। এই কিটসে ম্যাচিং লিপস্টিক ও লিপ লাইনার থাকে। তিনি অন্তত ৬৩০ মিলিয়ন ডলার মূল্যের পণ্য বিক্রি করেছেন। ফোর্বস জানায়, তার কোম্পানির মূল্য প্রায় ৮০০ মিলিয়ন ডলার যার শতভাগ মালিকানা তার।
শুক্রবার (২৯ মে) ফোর্বস জানায়, কাইলি দাবি করেছিল তার কসমেটিকস সেবছর ৩০০ মিলিয়ন ডলার বিক্রি হবে। কিন্তু বাস্তবে সেটা মাত্র ১২৫ মিলিয়ন ডলার হয়েছিল। বেশ শ্লেষসহকারে ফোর্বস বলে, কারদাশিয়ান-জেনার পরিবার ডাহা মিথ্যা, লুকোচুরি ও মনগড়া কথা বলেছেন।

এমনকি এটাকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের দীর্ঘদিন ধরে দাবি করা বিশাল সম্পত্তির মতোই মনগড়া বলে উল্লেখ করে ফোর্বস। তবে এসবের তোয়াক্কা করছেন না কাইলি জেনার। টুইটারে তিনি লেখেন, আমার এখন কত টাকা আছে তা নির্ধারণ করার চেয়ে আরও গুরুত্বপূর্ণ অন্তত ১০০টি কাজ আমার হাতে রয়েছে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close