আমাদের ওয়েবসাইট www.womeneye24.com আপডেটের কাজ চলছে। সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা দু:খিত
বিনোদন

এনসিবির নজরে সারা, উদ্ধব ফের কঙ্গনার নিশানায়

বিনোদন ডেস্ক : সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যু মামলায় বলিউডের মাদক কান্ড সামনে আসার পর থেকেই সুশান্ত ও রিয়ার ঘনিষ্ঠ সারা আলি খানের নামও এসেছে চর্চায়। এনসিবি সূত্রে দাবি করা হয়েছে, সুশান্তের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তী জানিয়েছেন নিয়মিত মাদক সেবন করেন সাইফ আলি খানের কন্যা। মাদক কারবারিদের সঙ্গেও তাঁর যোগাযোগ রয়েছে। সংবাদমাধ্যমের একাংশের দাবি, সারা আলি খানকে সমন পাঠাতে পারে এনসিবি।

রিয়া যার থেকে মাদক কিনতেন, তার পাশাপাশি অন্য এক জনের থেকেও সারা মাদক কিনতেন বলে অভিযোগ। তদন্তকারীদের অনুমান, সারার থেকেও সুশান্তের জন্য মাদক নিয়ে যেতেন রিয়া। আজ মাদক পাচারকারী হিসেবে অভিযুক্ত সূর্যদীপ মালহোত্রের মুম্বইয়ের বাড়িতে তল্লাশি চালায় এনসিবি। সূর্যদীপকে হেফাজতেও নেওয়া হতে পারে। এ ছাড়াও তিন জন মাদক পাচারকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

অন্য দিকে, বলিউডের মাদক কান্ডের অভিযোগ সঠিক বলে আজ লোকসভায় দাবি করেন বিজেপি সাংসদ তথা অভিনেতা রবি কিষেণও। তাঁর দাবি, দেশের যুবসমাজকে ধ্বংস করে দিতে চিন ও পাকিস্তানের এ এক সুপরিকল্পিত চক্রান্ত।

এর আগে কঙ্গনা রানাউতও বলিউডের একাধিক তারকার বিরুদ্ধে মাদক যোগের অভিযোগ তুলেছিলেন। আজ ফের মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে ও তাঁর ছেলে তথা মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী আদিত্য ঠাকরেকে নিশানা করেছেন তিনি। তাঁর টুইট, ‘‘মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীর মূল সমস্যা হল, কেন আমি মুভি মাফিয়া, সুশান্তের হত্যাকারী এবং মাদক চক্রের কুকীর্তি ফাঁস করেছি! গোটা বিষয়টির সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর পুত্র আদিত্য ঠাকরে যুক্ত! এই অপরাধে তাঁরা আমাকে দমাতে চাইছেন। দেখা যাক কে কাকে দমায়!’’

গত কালই মুম্বই ছেড়ে হিমাচল প্রদেশের উদ্দেশে রওনা দেন কঙ্গনা। তবে বিমানবন্দরে যাওয়ার পথে টুইট করে জানান, ভারাক্রান্ত মন নিয়ে মুম্বই ছাড়ছেন তিনি। গত কয়েক দিনে যে ভাবে তাঁর উপরে একের পর এক আক্রমণ নেমে এসেছে, তাতে তিনি ‘সন্ত্রস্ত’। তাঁর মতে, ঘটনাপ্রবাহই বলে দিচ্ছে মুম্বই সম্পর্কে তাঁর ‘পাক অধিকৃত কাশ্মীর’ তত্ত্ব যথার্থ। চণ্ডীগড়ে নেমে ফের তাঁর টুইট, ‘এ যাত্রায় বাঁচলাম।’ পাশাপাশি ফের শিবসেনাকে সোনিয়া সেনা বলে কটাক্ষ করেছেন তিনি। আবার কঙ্গনার পাক অধিকৃত কাশ্মীর মন্তব্যের প্রেক্ষিতে শিবসেনা বিধায়ক প্রতাপ সরনায়েকের টুইট, ‘ যত চেষ্টাই করা হোক না কেন, কুকুরের লেজ সোজা করা সম্ভব নয়।’ কঙ্গনাকে স্বাগত জানিয়েছেন বিজেপি শাসিত হিমাচল প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী জয়রাম ঠাকুর। কঙ্গনার নিরাপত্তারক্ষী বহাল রাখা হবে বলেও জানান। সূত্র : আনন্দবাজার

সা/১৫/৯/১১.০৮

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close