আমাদের ওয়েবসাইট www.womeneye24.com আপডেটের কাজ চলছে। সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা দু:খিত
লাইফ স্টাইল

শিশুদের কাশি নাকি করোনার লক্ষণ

ওমেনআই প্রতিবেদক : মহামারী করোনাভাইরাস চলছে প্রায় ৯ মাস ধরে। সামনেই শীতের মৌসুম, বিশ্বজুড়ে বাবা-মা চিন্তিত তাদের শিশু সন্তান নিয়ে। বছরের এই সময়ে শিশুদের জ্বর, ঠান্ডা, কাশি লেগে থাকে, এটি খুব সাধারণ ব্যাপার। কিন্তু ২০২০ সালে এ ব্যাপারটি যেন একদমই ভিন্ন কথা বলছে। করোনাভাইরাস বিশ্বজুড়ে যেভাবে বেড়াচ্ছে, সেক্ষেত্রে শিশু সন্তানের হাঁচি-কাশি শুনে মা-বাবার আঁতকে ওঠা স্বাভাবিক এবং সর্তক থাকাও জরুরি। তাই কী করবেন, যদি আপনার সন্তানের সর্দি, জ্বর কিংবা ঠান্ডা লাগে? এগুলো কি কোভিড -১৯ এর লক্ষণ নাকি মৌসুমী সর্দি, কাশি?

শীতের মৌসুমে করোনার প্রভাব
করোনায় শিশুদের ওপর কেমন প্রভাব ফেলবে তা বোঝার জন্য আরও গবেষণা প্রয়োজন। এখন পর্যন্ত মেডিকেল রিপোর্ট এবং সমীক্ষা বলছে, করোনাভাইরাসের ছোবল থেকে শিশুরা অনেকাংশেই রক্ষা পেয়েছে এবং খুব কম সংখ্যক শিশুই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। তবে, শিশুদের মাঝে নতুন পেডিয়াট্রিক ইনফ্লামেটরি মাল্টিসিস্টেম সিন্ড্রোম দেখা যাচ্ছে যা করোনা পরবর্তী একটি মারাত্মক এবং প্রাণঘাতী অসুস্থতা। তাই শীতের মৌসুমে এই ব্যাপারে যথেষ্ট সচেতন থাকার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। আপনি কি আসলেই জানেন, আপনার সন্তানের লক্ষণগুলো কি কোভিড -১৯ এর নাকি সাধারণ সর্দি, কাশি? জ্বর হলে কি পরীক্ষা করা উচিত? আপনার সন্তানের লক্ষণ বোঝার জন্য তিনটি জিনিস মাথায় রাখা জরুরি।

মাল্টিসিস্টেম ইনফ্ল্যামেটরি সিনড্রোমের লক্ষণগুলো দেখুন
শিশুদের জন্য করোনার মতোই প্রাণঘাতী এক অসুখ হলো মাল্টিসিস্টেম ইনফ্ল্যামেটরি সিনড্রোম। এই রোগের আরও স্বতন্ত্র কিছু লক্ষণ রয়েছে, তাই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব চিকিৎসা সহায়তা নেয়া গুরুত্বপূর্ণ। এর কয়েকটি সাধারণ লক্ষণগুলোর মধ্যে রয়েছে:
১. অতি মাত্রায় জ্বর
২. পেটে ব্যথা
৩. লাল, রক্তক্ষরণ চোখ
৪. হাত এবং পা ফোলা
৫. অস্বাভাবিক ক্লান্তি।
শিশুর স্বাস্থ্যের বিষয়ে কোনোভাবেই উদাসীন হওয়া চলবে না। যেহেতু আপনার শিশুটি মৌসুমী জ্বর, সর্দি এবং কাশিতে ভুগছে কি-না তা জানার সঠিক কোনো উপায় নেই, সেহেতু সচেতনতায় যেন কোনো ত্রুটি না থাকে।

সা/১৪/৯/২১.০০

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close