আমাদের ওয়েবসাইট www.womeneye24.com আপডেটের কাজ চলছে। সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা দু:খিত
অর্থনীতি

প্রথম পণ্যবোঝাই নৌযান গেলো ত্রিপুরায়

ওমেনআই ডেস্ক : বাংলাদেশ থেকে গোমতী নদী দিয়ে ১০ মেট্রিক টন সিমেন্টবোঝাই একটি নৌযান গেলো ত্রিপুরার সোনামুড়া।

শনিবার (৫ সেপ্টেম্বর) কুমিল্লার বিবির বাজার থেকে এই নৌযান ছেড়ে যায়। এর মাধ‌্যমে বাংলাদেশ-ত্রিপুরার মধ‌্যে নৌপথে বাণিজ‌্য শুরু হলো।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাই কমিশনার রিভা গাঙ্গুলী, বিআইডাব্লিউটিএ’র চেয়ারম্যান কমোডর গোলাম সাদেক, কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো. আবুল ফজল মীর, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আজিম-উল-আহসান, সিমেন্ট রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান প্রিমিয়ার সিমেন্ট লিমিটেডের রপ্তানি বিভাগের ব্যবস্থাপক ড. সালাহ উদ্দিন প্রমুখ।

পরে বিবির বাজার অংশে বিআইডাব্লিউটিএ’র চেয়ারম্যান কমোডর গোলাম সাদেক সিমেন্ট বোঝাই ট্রলারটি বিদায় জানান। এসময় তিনি বলেন, ‘নদীর নব্যতা সংকটসহ অনেক প্রতিবন্ধকতা কাটিয়ে আমরা নৌযানটি ভারতে পাঠাতে সক্ষম হয়েছি। আজকের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে আমরা ভবিষ্যতের জন্যে প্রস্তুতি নেব।’

নৌযানে বহন করা প্রিমিয়ার সিমেন্ট লি. কোম্পানির কর্মকর্তারা জানান, গোমতী নদীর নব্যতা সংকটের ফলে পথে পথে ধীরগতির কারণে যথাসময়ে নৌযানটি ভারতে পৌঁছাতে বিলম্ব হয়েছে।

কুমিল্লা জেলা প্রশাসক আবুল ফজল মীর বলেন, এই প্রথম ভারতের সঙ্গে নৌ যোগাযোগ শুরু হচ্ছে। সেক্ষেত্রে দু দেশই উপকৃত হবে।

সিমেন্টবাহী নৌযানটিকে স্বাগত জানাতে ত্রিপুরার সোনামোড়ায় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীসহ বিশিষ্টজনেরা উপস্থিত ছিলেন। নৌযানটিকে স্বাগত জানাতে ব‌্যাপক প্রস্তুতি নেয় ভারত সরকার। সোনামোড়া বন্দরে নির্মাণ করা হয় ভাসমানজেটি।

বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাই কমিশনার রিভা গাঙ্গুলী দাস জানান, ‘বাংলাদেশ ভারতের জন্য আজ একটি ঐতিহাসিক দিন। সাধারণত দু’দেশে মধ্যে ট্রাকে পণ্য আমদানি-রপ্তানি করা হয়। নৌপথ চালু হলে, তা হবে সাশ্রয়ী ও পরিবেশবান্ধব। করোনা মহামারিতেও দুদেশের মধ্যে বাণিজ্যিক সংযোগ অব্যাহত আছে।’

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close