আমাদের ওয়েবসাইট www.womeneye24.com আপডেটের কাজ চলছে। সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা দু:খিত
জাতীয়

আশঙ্কামুক্ত নন ইউএনও ওয়াহিদা খানম

ওমেনআই প্রতিবেদক : অস্ত্রোপচারের পর ৭২ ঘন্টা চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে রয়েছেন দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটের ইউএনও ওয়াহিদা খানম। তার অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে গত রাতে। ওয়াহিদার মাথায় মোট নয়টা আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এরমধ্যে একটা খুব গভীর। আঘাতে মাথার হাড় ভেঙ্গে গেছে। যে কারণে অস্ত্রোপচার করতে সময় নেন চিকিৎসকরা। অস্ত্রোপচার সফল হলেও ওয়াহিদা খানম আশঙ্কামুক্ত না বলে জানিয়েছেন চিকিৎকরা। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে অস্ত্রোপচার করা হয়।

ডা. জাহিদুর রহমানের নেতৃত্বে রাত সোয়া ১১টা পর্যন্ত চলে এই অস্ত্রোপচার।
ডা. জাহিদুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, ওটিতে নিয়ে দেখা যায় তার মাথায় মোট নয়টা আঘাতের চিহ্ন। একটা খুব বড়, যার ভেতর দিয়ে হাড় ভেঙ্গে গেছে। বাকি আটটা ইনজুর ছিল। তার ভেতরে ছিল মাথার দুই পাশে তিনটা করে ছয়টি, মুখের উপরে একটা, নাকের উপরে একটা এবং চোখের নিচে একটা। ভেতরে ঢুকে যাওয়া হাড় বের করা হয়েছে, রক্তরক্ষণ বন্ধ করা হয়েছে। অন্য আঘাতগুলোও সব রিপেয়ার করা হয়েছে । আমার আশাবাদী, তবে এটা হেড ইনজুরি, ব্রেইনের ভেতরে রক্তক্ষরণের ব্যাপার। এখন তাকে ৭২ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণ রাখা হয়েছে। পর্যবেক্ষণ করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।
উল্লেখ্য, বুধবার (০২ সেপ্টেম্বর) দিনগত রাত ২টার দিকে দুর্বৃত্তরা তাঁর বাসায় ঢুকে ধারালো অস্ত্র ও হাতুড়ি জাতীয় কিছু একটা দিয়ে ইউএনও এবং তাঁর বাবার ওপর হামলা চালায়। ইউএনওর মাথায় গুরুতর আঘাত এবং তাঁর বাবাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করা হয়। পরে আজ বৃহস্পতিবার তাঁকে ঢাকায় আনা হয়।

সা/৪/৯/১২.১৪

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close