আমাদের ওয়েবসাইট www.womeneye24.com আপডেটের কাজ চলছে। সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা দু:খিত
বিনোদন

রিয়াকে ১০ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ সিবিআইয়ের

বিনোদন ডেস্ক : মুম্বইয়ে পা দেওয়ার আট দিন পরে রিয়া চক্রবর্তীকে তলব করল সিবিআই। জিজ্ঞাসাবাদ করল দশ ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে।

আজ সকাল সাড়ে ১০টার সময়ে সান্টাক্রুজ়ের ডিআরডিও-র গেস্টহাউসে ডেকে পাঠানো হয়েছিল ২৮ বছর বয়সি রিয়াকে। এখানেই গত সপ্তাহ থেকে রয়েছেন সিবিআইয়ের গোয়েন্দারা। এখানেই তলব করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে প্রয়াত অভিনেতার সঙ্গীদের। রিয়া আজ তাঁর নিজের বাড়ি থেকে বের হন সকাল দশটায়। বাড়ির বাইরে সাংবাদিকেরা তাঁর গাড়ির সামনে ভিড় জমান। রিয়া ক্ষুদ্ধ ভাবে গাড়ির ভিতর থেকে জানলার কাচে কনুই দিয়ে ধাক্কা মারছেন, সাংবাদিকদের উদ্দেশে কিছু বলছেন, এই ভিডিও টি ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। সিবিআই সূত্রের খবর, রিয়ার বয়ান রেকর্ড করেছেন নূপুর প্রসাদ। তিনিই মুম্বইয়ে আসা সিবিআই দলটির ভারপ্রাপ্ত অফিসার। ১০টা ৪০-এ গেস্টহাউস পৌঁছন রিয়া। রাত ন’টার পরে সেখান থেকে বের হন। সিবিআই সূত্রের খবর, কাল বা অন্য কোনও দিন ফের ডাকা হবে রিয়াকে।

রিয়ার সঙ্গেই সিবিআই তলব করেছিল তাঁর ভাই শৌভিক চক্রবর্তীকেও। গত কালও শৌভিককে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছি। আজ শৌভিক ও রিয়াকে আলাদা আলাদা ঘরে বসিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে, যাতে তাঁদের বয়ানে কোনও অসঙ্গতি থাকলে সহজেই ধরা পড়ে।

রিয়া সিবিআইয়ের গেস্টহাউসে পৌঁছনোর আগে সেখানে পৌঁছে যান সুশান্তের বন্ধু তথা একই ফ্ল্যাটের বাসিন্দা সিদ্ধার্থ পিঠানি। গত সাত দিন ধরে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থাটি। সিবিআই সূত্রে জানা গিয়েছে, দুপুর আড়াইটা সময় সান্টা ক্রুজ়ের গেস্টহাউস থেকে সিদ্ধার্থকে নিয়ে যাওয়া হয় বান্দ্রা কুর্লা কমপ্লেক্সে সিবিআইয়ের দফতরে। সন্ধে সাড়ে সাতটায় ফেরত আসেন সান্টা ক্রুজ়ের গেস্টহাউসে।

আজ সুশান্তের ম্যানেজার স্যামুয়েল মিরান্ডাকেও সিবিআইয়ের গেস্টহাউসে তলব করা হয়েছিল। এ ছাড়া, সুশান্তের পাচক নীরজ সিংহ এবং সব সময়ের পরিচারক দীপেশ সবন্তকেও একাধিক বার জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন সিবিআইয়ের গোয়েন্দারা। এত দিন সিবিআই রিয়াকে না-ডাকলেও দফায় দফায় তাঁকে জিজ্ঞাসাবদ করেছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। তা ছাড়া, সুশান্তের মৃত্যুর পরেই রিয়ার বয়ান নথিভুক্ত করেছিল মুম্বই পুলিশ।

সুশান্তের টাকা তছরুপের তদন্তে নেমে আজ এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) সমন পাঠিয়েছে গোয়ার এক হোটেল ব্যবসায়ী গৌরব আর্যকে। একাধিক বেসরকারি সূত্রের দাবি, এই গৌরব-ই মাদক সরবরাহ করতেন রিয়া ও সুশান্তকে। সূত্র : আনন্দবাজার

সা/২৯/৮/১১.৫৩

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close