আমাদের ওয়েবসাইট www.womeneye24.com আপডেটের কাজ চলছে। সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা দু:খিত
আন্তর্জাতিক

কিম কোমায়, দায়িত্ব নিতে প্রস্তুত বোন!

ওমেনআই ডেস্ক : উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং-উন কোমায় আছেন এবং সে কারণে তার বোন কিম ইয়ো-জং ক্ষমতা নেওয়ার জন্য প্রস্তুত আছেন বলে দাবি করেছেন দক্ষিণ কোরিয়ার একজন কূটনীতিক। দক্ষিণ কোরিয়ার প্রয়াত রাষ্ট্রপতি কিম দা-জংয়ের প্রাক্তন সহযোগী চ্যাং সং-মিন এমন দাবি করেছেন।

তার দাবি, ‌‘উত্তর কোরিয়া তার নেতার স্বাস্থ্যের অবনতির সত্যতা গোপন করছে এবং তিনি বুঝতে পেরেছেন যে কিম কোমোটোজ অবস্থায় আছেন।’

ডেইলি মেইল, নিউজিল্যান্ড হেরাল্ডসহ একাধিক আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এ বছর জনসম্মুখে কম উপস্থিতির কারণে কিমের স্বাস্থ্যের সত্যিকার অবস্থা নিয়ে জল্পনা চলছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

স্থানীয় গণমাধ্যমকে চ্যাং সং-মিন বলেছেন, ‘কিম জং-উন কোমায় আছেন। তবে তার জীবনের অবসান ঘটেনি।’

তিনি আরও বলেন, ‘কিমের বোন, ৩৩ বছর বয়সী কিম ইয়ো-জং তার ভাইয়ের কিছু ক্ষমতা গ্রহণের ক্ষেত্রে প্রধান অবস্থানে রয়েছেন।’

‘উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতার পদে সম্পূর্ণ উত্তরাধিকার কাঠামো গঠন করা হয়নি। দীর্ঘকাল ধরে তো আর শূন্যতা বজায় রাখা যায় না। সে কারণে কিম জং-উনের বোন কিম ইয়ো-জংকে সামনে নিয়ে আসা হচ্ছে’, যোগ করেন দক্ষিণ কোরিয়ার এই কূটনীতিক।

চাং সান-মিনের দাবি, উত্তর কোরিয়ার সংবাদমাধ্যম গত বৃহস্পতিবার একটি সরকারি সভায় কিম অংশ নিয়েছিল দাবি করে ছবি প্রকাশ করেছে। তবে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ছবিগুলো ‘স্বতন্ত্রভাবে যাচাই’ করা হয়নি।

এই সপ্তাহের শুরুতে, দাবি করা হয়েছিল যে কিম জং-উন তার বোনকে উত্তর কোরিয়ার সেকেন্ড-ইন-কমান্ডে পদোন্নতি দিয়েছিলেন।

ইয়ুনহাপ নিউজ অ্যাজেন্সির খবরে বলা হয়েছে, দক্ষিণ কোরিয়ার গোয়েন্দারা জানতে পেরেছেন, নিজের কিছু ক্ষমতা ছোট বোনের হাতে ছেড়ে দিচ্ছেন কিম জং-উন। বিষয়টি প্রকাশের কয়েকদিনের মাথায় কিমের কোমায় যাওয়ার দাবি উঠল।

অবশ্য কিম জং উনের অসুস্থতা কিংবা মৃত্যুর গুজব ছড়ানোর বিষয়টি নতুন নয়। এর আগে গত এপ্রিল মাসে দীর্ঘদিন ধরে তাকে জনসম্মুখে না দেখা যাওয়ার পর মৃত্যুর গুজব ছড়িয়ে পড়ে। অবশেষে একটি কারখানা উদ্বোধনের সময় তিনি সামনে আসেন।

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close