নারী সংগঠন

পোশাকশিল্পে কর্মরত নারীর উপর সহিংসতা প্রতিরোধ বিষয়ক ওয়েবিনার

ওমেনআই প্রতিবেদক : ‘সজাগ’ কোয়ালিশন এর আয়োজনে “পোশাক শিল্পে কর্মরত নারীর উপর সহিংসতা প্রতিরোধে সজাগ এর অভিজ্ঞতাঃ অর্জন ও সম্ভাবনা বিষয়ক ওয়েবিনার” অনুষ্ঠিত হয়। অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত সচিব, শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় ড. মো: রেজাউল হক । পোশাক শিল্পে কর্মরত নারীর উপর সহিংসতা প্রতিরোধে কাজ করার অভিজ্ঞতা উপস্থাপন করেন কোয়ালিশন প্রতিনিধিগণ । তারা হলেন, রওশন আরা , নারীপক্ষ, মো: তৈয়্যেবুর রহমান,ব্লাস্ট, জামাল উদ্দীন,এস এনভি ও সজাগসাথী, কামরুন নাহার,কোয়ালিটি ইন্সপেক্টর, মিলেনিয়াম টেক্সটাইল(সাউদার্ন)লি:। প্রকল্প মূল্যায়ণ প্রতিবেদনের সারাংশ উপস্থাপন করেন ফারহানা আফরোজ-হেড অব প্রোগাম ক্রিশ্চিয়ান এইড। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন মাহীন সুলতান, দলনেতা সজাগ কোয়ালিশন এবং অনুষ্ঠানে সমাপনী বক্তব্য রাখেন পঙ্কজ কুমার,কান্ট্রি ডিরেক্টর- ক্রিশ্চিয়ান এইড ।

অনুষ্ঠানে আলোচক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন,কামরুন নাহার-কোয়ালিটি ইন্সপেক্টর মিলেনিয়াম টেক্সটাইল (সাউদার্ন) লি:, প্রদ্বীপ কুমার নাথ-এজিএম কমপ্লায়েন্স, ইন্টারস্টফ এ্যাপারেলস লি:, ডা: আবুল হোসেন- প্রোগ্রাম ডিরেক্টর, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রনালয়, মনোয়ার হোসেন-সিনিয়র সেক্রেটারী, বিজিএমইএ।
কোয়ালিটি ইন্সপেক্টর (সজাগসাথী) কামরুন নাহার বলেন, নারীর উপর সহিংসতা ও যৌন হয়রানি রোধের প্রশিক্ষণ পেয়ে আমরা অন্য শ্রমিকদের প্রশিক্ষণ করাতে পেরেছি, বিভিন্ন সমস্যা আসলে পরামর্শ দিতে পেরেছি। আমি মনে করি প্রশিক্ষণ পেয়ে আমরা যেমন কারখানার সমস্ত শ্রমিক ও স্টাফকে যৌন হয়রানি রোধ সচেতন করতে পেরেছি তেমনি দেশের প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও কর্মস্থলে এই ধরণের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করলে নারীর উপর যৌন হয়রানি অনেকটা কমে যাবে।
আওয়াজফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক নাজমা আক্তার বলেন,যে সব কারখানায় অভিযোগ কমিটি গঠন হয়েছে সেগুলো নিয়মিত ফলোআপ ও মনিটরিং করতে হবে যেন তা সঠিকভাবে কাজ করে এবং স্থায়ী হয়। পোশাক শিল্পে এখনও অনেক কাজ করার আছে সেক্ষেত্রে এনজিও, মালিক,সরকার, বিজিএমইএ সবাইকে একসাথে কাজ করতে হবে।

সামি/৩১/৭/২১.৪৫

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close