খেলাধুলা

ধর্ষণ করেও পার পেয়ে যাবেন এই ক্রিকেটার!

স্পোর্টস ডেস্ক : গত বছরের এপ্রিলে ধর্ষণের অভিযোগে পাঁচ বছরের জন্য কারাগারে পাঠানো হয়েছে উইস্টারশায়ারের অলরাউন্ডার অ্যালেক্স হেপবার্নকে। একবছরের বেশি সময় পর মামলা আবার উল্টে গেছে, ক্রিকেটারের আইনজীবীর যুক্তি ধর্ষণ নয়, তার মক্কেলের সঙ্গে স্বেচ্ছায় শারীরিক মিলন করেছিলেন নারীরা!

২০১৭ সালের এপ্রিলে পোর্টল্যান্ড সিটির এক ফ্ল্যাটে নারীদের সঙ্গে জোর করে শারীরিক সম্পর্কের অভিযোগে গ্রেপ্তার হন অস্ট্রেলিয়ান বংশোদ্ভূত উইস্টারশায়ার অলরাউন্ডার হেপবার্ন। হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে এক যৌন প্রতিযোগিতার চ্যালেঞ্জ হিসেবে এই কুকর্ম করেছেন তিনি।

চলতি বছরের জুনের শুরুতে মামলার রায়ের বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ করেছেন হেপবার্ন। তার আইনজীবী ব্যারিস্টার ডেভিড এমান্যুয়েল মামলার সাক্ষ্য হিসেবে একাধিক ক্ষুদে বার্তাও বিচারকদের কাছে পেশ করেছেন। চ্যালেঞ্জের শর্ত ছিল, যিনি যত নারীর সঙ্গে রাত্রিযাপন করবেন তিনিই হবেন বিজয়ী।

আইনজীবীর দাবি, কারও সম্মতি ছাড়া কোনো নারীর সঙ্গেই যৌন সম্পর্কে জড়াননি হেপবার্ন। এমান্যুয়েল যদিও স্বীকার করেছেন চ্যালেঞ্জে জেতার জন্য একটু বেশিই ‘বাড়াবাড়ি’ করেছেন তার ২৪ বছর বয়সী মক্কেল।

হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের চ্যালেঞ্জটি অবশ্য একদমই পছন্দ করেননি বিচারকরা। একজন বিচারক বিষয়টি নিয়ে বলেছেন, ‘এটি পরিষ্কার অপরাধ। ঘটনার পেছনে সত্যি যে, এ ধরনের প্রতিযোগিতা করাই অন্যায়, যার কারণে শাস্তি পাওয়ার মতো কাজই করেছেন হেপবার্ন।’

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close